উল্টো পিরামিড কাঠামো ।Inverted Pyramid Structure

উল্টো পিরামিড কাঠামো / Inverted Pyramid Structure

পরিচিতি (Introduction) :


সংবাদ লেখার জন্য বিভিন্ন ধরনের কাঠামো রয়েছে। কোন সংবাদ লেখার জন্য এর যেকোন একটি কাঠামো ব্যবহার না করে কেন নব্বই ভাগ সংবাদ উল্টো পিরামিড কাঠামো অনুসরণ করে লিখা হয় সে বিষয়ে বিস্তারিত জানার পূর্বে জেনে নেওয়া যাক, উল্টো পিরামিড সংবাদ কাঠামো কী।


পিরামিডের সর্বনিম্ন স্থানে সবচেয়ে দামি, মুল্যবান সম্পদ রাখা হত। পিরামিডের আকৃতির বিপরীত অবস্থাকে উল্টো পিরামিড কাঠামো বলা হয়। অর্থাৎ, এখানে সবার উপরে দামি বস্তু অবস্থান করে।

উল্টো পিরামিড কাঠামো


যে সংবাদ কাঠামোতে সংবাদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্যটি সবার উপরে অবস্থান করে এবং গুরুত্বের ক্রমানুসারে আস্তে আস্তে নিচের দিকে অপেক্ষাকৃত কম গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সাজানো হয়, সে সংবাদ কাঠামোকে উল্টো পিরামিড সংবাদ কাঠামো বলা হয়।



এ কাঠামোতে শুরুতেই সংবাদের সার তথা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্যটি দেওয়া থাকে। এতে মূলত ষড়-ক এর সবচেয়ে বেশি ও গুরুত্বপূর্ণ ক এর উত্তর দেওয়া থাকে।

Know More….সাংবাদিকতা কী । What Is Journalism

ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপট (Historical Background) :


টেলিগ্রাফ আবিষ্কার এর পর থেকে সংবাদক্ষেত্রে এক নতুন রূপ আবিষ্কৃত হয়। তখন দূর – দূরান্তের খবরাখবর টেলিগ্রাফের সাহায্যে প্রেরণ করা হত। প্রতিটি শব্দের হিসেব করে অর্থ প্রদান করতে হত। এছাড়া অনেক সময় টেলিগ্রাফ যোগাযোগ শেষ হবার পূর্বেই লাইনচ্যুত হয়ে যেত। ফলে অনেকসময় মূল সংবাদ জানা যেত না। এজন্য তখন মানুষ সবার আগে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্যটি, সবচেয়ে কমশব্দে, সর্বপ্রথমে জানিয়ে দিত।
সেখান থেকেই উল্টো পিরামিড সংবাদ কাঠামোর জন্ম।


উল্টো পিরামিড সংবাদ কাঠামো (Inverted Pyramid Structure):


বর্তমান সময়ের সংবাদগুলোর মধ্যে প্রায় নব্বইভাগ সংবাদ লেখা হয় উল্টো পিরামিড
সংবাদ কাঠামো অনুসরণ করে। সৃষ্টির পর থেকে আজ অবধি টিকে থাকার পেছনে যে কারণ গুলো রয়েছে, সেগুলোকে
এ কাঠামোর সুবিধাই বলা চলে।


সুবিধা:


উল্টো পিরামিড কাঠামো বিভিন্ন ধরনের সুবিধা প্রদান করে।


সংবাদ লিখার ক্ষেত্রে:


একজন সাংবাদিক এ কাঠামোটি অনুসরণ করে খুব সহজেই সংবাদটি লিখে ফেলতে পারেন। এ বিষয়ে বলা হয়ে থাকে, “যেমন করে বলা, তেমন করে লিখা”


অর্থাৎ, কোন একটি ঘটনা দেখে আমরা অন্যের কাছে যেমন করে তার বর্ননা দেই, তেমন করে সংবাদটি লিখা । আমরা যখন কোন ঘটনা দেখি, তখন প্রথমেই অন্যকে এটির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও আকর্ষণীয় অংশটি বলি। সংবাদেও সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও আকর্ষণীয় অংশটি সবার আগে লিখতে হবে।


এভাবে গল্প বলার ঢঙে সংবাদ কাহিনী লিখতে এ কাঠামো একজন সাংবাদিক তথা প্রতিবেদককে সহায়তা করে।


সম্পাদনার ক্ষেত্রে:


সাংবাদিক সংবাদ কাহিনীটি গুরুত্বের ক্রমানুসারে সাজিয়ে লিখার পর সাব-এডিটর সেটি সম্পাদনা করেন । এক্ষেত্রে তিনি অপ্রয়োজনীয় কিংবা পত্রিকায় স্থান সংকুলানের জন্য যেকোন সময় সংবাদটি নিচের দিক থেকে কেটে ফেলতে পারেন। এতে করে সংবাদ কাহিনীটি তার গুরুত্ব হারাবে না।


পাঠকের সুবিধা:


এ কাঠামোটি কেবল সংবাদেরসাথে নিয়োজিতদের সুবিধা প্রদান করে না বরং পাঠের ক্ষেত্রেও একজন পাঠককে সহায়তা করে।


একজন পাঠক শুরুতেই জানতে চান ঘটনা কী ঘটেছে। সেক্ষেত্রে এই কাঠামো শুরুতেই পাঠকের প্রশ্নের উত্তর প্রদান করে।


এছাড়া বর্তমান সময়ের পাঠকগণ অত্যন্ত ব্যস্ত হওয়ার দরুণ, তারা পুরো সংবাদ পড়ার সময় পান না। ফলে সংবাদ সূচনা পড়েই তারা সংবাদ সম্পর্কে জানতে চান । এক্ষেত্রে ষড়-ক এর উত্তর প্রদান করে ব্যস্ত পাঠকের জানার আগ্রহ মেটায় উল্টো পিরামিড কাঠামো কাঠামো।

লেখকঃ শিক্ষার্থী

যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ , ৪র্থ বর্ষ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*